এ্যাপস সমুহ

Picture

মাদকাসক্তদের মাদক নিরাময় কেন্দ্রে চিকিৎসার ব্যবস্থাকরণ

Picture

মাদকাসক্তদের উপযুক্ত চিকিৎসা এবং মোটিভেশনাল কার্যক্রম ব্যতীত স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনা প্রায় অসম্ভব। বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে তাদের উদ্বুদ্ধকরণের লক্ষ্যে জেলা-থানা পর্যায় সহ ইউনিয়ন ও গ্রাম পর্যায়েও সভা করা হয়েছে। স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের মাধ্যমেও মাদকাসক্ত, তাদের আত্মীয়-স্বজনদের বিষয়টি বুঝানোর চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। এছাড়াও বরিশাল শহরের ৩টি সরকার অনুমোদিত মাদক নিরাময় কেন্দ্রের মালিকদের সাথে বিস্তারিত আলোচনা করে কম ব্যয়ে মাদকাসক্তদের চিকিৎসার ব্যবস্থা হয়েছে। বরিশাল রেঞ্জের ৪৬টি থানা থেকে নিয়মিতভাবে মাদকাসক্তদের মাদক নিরাময় কেন্দ্রে প্রেরণ করা হয়ে থাকে। বরিশাল রেঞ্জের ৬টি জেলায় এ পর্যন্ত ৩২৭ জন মাদক সেবীকে নিরাময় কেন্দ্রে চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করা হয়েছে। এর মধ্যে ২৭৯ জন মাদকসেবী চিকিৎসা শেষে নিজ বাড়ীতে ফিরে গেছেন এবং ৩৮ জন মাদকসেবী বর্তমানে চিকিৎসাধীন আছেন। মাদক নিরাময় কেন্দ্র হতে চিকিৎসাপ্রাপ্ত মাদকসেবীরা যাতে পুনরায় মাদকাসক্ত না হতে পারে তা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সার্বক্ষণিক নিরীক্ষণে রাখার জন্য এসআই পদমর্যাদার কর্মকর্তার উপর দায়িত্ব দেওয়া আছে। এই পুলিশ কর্মকর্তা প্রতিনিয়ত তার সাথে যোগাযোগ রাখে যাতে সে পুনরায় মাদকের সাথে সম্পৃক্ত হতে না পারে। রেঞ্জাধীন ৬টি জেলাতে মাদকসেবী/ব্যবসায়ীদের আত্মসমর্পণ ও পুনর্বাসন প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। 
চিকিৎসাধীন মাদকাসক্তদের রেঞ্জ অফিস থেকে নিয়মিত মনিটরিংসহ মাঝে মধ্যেই রেঞ্জ ডিআইজির কার্যালয়ে মাদকাসক্ত নিরাময় কেন্দ্রের মালিকসহ সংশ্লিষ্টদের সাথে মিটিং এর ব্যবস্থা করা হয়। একইসাথে ডিআইজিসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকতাগণ কর্তৃক নিয়মিতভাবে মাদক নিরাময় কেন্দ্রসমূহে চিকিৎসাধীন মাদকাসক্তদের সরজমিনে পরিদর্শনের মাধ্যমে সুষ্ঠু চিকিৎসা নিশ্চিত করা হয়ে থাকে।
চিকিৎসা শেষে রিলিজ দেয়ার সময় মাদক নিরাময় কেন্দ্র থেকে ঐ ব্যক্তির চিকিৎসা সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন ডিআইজি, বরিশাল রেঞ্জ অফিসে প্রেরণ করা হয়। প্রতিবেদনটিতে চিকিৎসা শুরুর আগে মাদকাসক্ত ব্যক্তির অবস্থা, চিকিৎসা চলাকালীন অবস্থা ও রিকভারি, চিকিৎসা শেষে তার অবস্থা এবং ভবিষ্যৎ করণীয় সুস্পষ্টভাবে উল্লেখ করা থাকে। প্রতিবেদনগুলো ডিআইজি অফিস হতে সংশ্লিষ্ট পুলিশ সুপার এবং থানার অফিসার ইন-চার্জ বরাবর প্রেরণ করা হয়। প্রতিবেদনে উল্লেখিত মন্তব্য অনুযায়ী পরবর্তীতে স্থানীয় পুলিশ এবং ঐ ব্যক্তির অভিভাবকবৃন্দ ব্যবস্থা গ্রহণ করে থাকেন যাতে সে আর কোনদিন মাদকের সাথে সম্পৃক্ত হতে না পারে।
 

 
Copyright © 2022 RANGE DIG OFFICE, BARISHAL. Developed by Momtaj Trading(Pvt.) Ltd.